মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

মাতৃত্বকালীন ভাতা

 

 

১নং এস,বি,কে ইউনিয়নের ২০২০-২১অর্থ বছরে মাতৃত্বকালীন ভাতা সুবিধাভোগীর সংখ্যা-৫০জন

 

সেবার সংক্ষিপ্ত বিবরণ-

 

পরিবারের ভরন পোষণের জন্য দরিদ্র মহিলাদের অর্থ উপার্যনের জন্য কাজ করতে হয়। কিন্তু গর্ভাবস্থার শেষ দিকে বা মাতৃত্বকালীন অবস্থায় কাজ করা সম্ভব হয় না। পুষ্টিকর খাবার বা ভরণ পোষণের অভাবে মা অসহায় অবস্থায় পড়েন। এই অবস্থা থেকে মুক্ত করতে দরিদ্র মাকে মাতৃত্বকালীন ভাতা দেয়া হয়। কমপক্ষে ২০ বছর বা তার বেশি বয়সের মাতৃত্বকালীন অবস্থায় যে কোন মহিলা এ সেবা পেতে পারেন। মাসিক ৩৫০/- হারে প্রতি ৬ মাস অন্তর অন্তর করে ৪বার বা ২৪ মাস ভাতা প্রদান করা হয়।

 

সেবার সুবিধা-

 

দরিদ্র মা আর্থিক ভাবে লাভবান হয়;

অর্থের মাধ্যমে পুষ্টিকর খাবার খেতে পারেন;

অর্থের অভাবে তাকে কষ্ট পেতে হয় না;

পরিবারের ভরণ পোষণ সম্ভব হয়;

শিশু স্বাস্থ্য নিশ্চিত হয়;

 

প্রক্রিয়া-

 

কোন দরিদ্র মা ভাতার জন্য ইউনিয়ন পরিষদে ভাতার জন্য যোগাযোগ করবেন বা নিজের নাম তালিকাভুক্ত করবেন। অথবা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে দরিদ্র গর্ভধারিণী মা কতজন আছেন এবং তাদের আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে স্থানীয়ভাবে জরিপ এবং তথ্যানুসন্ধান করা হবে। জরিপে প্রাপ্ত তথ্য প্রাথমিক বাছাই সম্পন্ন করা হয়। এরপর ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিনিধি সরজমিনে পরিদর্শন করে প্রাপ্ত তথ্য পরীক্ষা করে চূড়ান্তভাবে নির্বাচন করবেন। আরো কিছু দাপ্তরিক কাজ শেষ চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত ভাতাভোগীদের নিকট ভাতার কার্ড বিতরণ করা হয়। 

 

 

যোগ্যত
“দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা’’ প্রদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন নীতিমালা, মার্চ, ২০১১ অনুযায়ী বাস্তবায়ন হয়ে থাকে। সে অনুযায়ী:
ক. প্রথম বা দ্বিতীয় গর্ভধারণকাল (যেকোনো একবার);
খ. বয়স কমপক্ষে ২০ বছর বা তার ঊর্ধ্বে;
গ. মোট মাসিক আয় ১৫০০/- টাকার নিম্নে;
ঘ. দরিদ্র প্রতিবন্ধী মা অগ্রাধিকার পাবেন;
ঙ. কেবল বসতবাড়ি রয়েছে বা অন্যের জায়গায় বাস করে;
চ. নিজের বা পরিবারের কোনো কৃষি জমি, মৎস্য চাষের জন্য পুকুর নেই;
ছ. উপকারভোগী নির্বাচনের সময় অর্থাৎ জুলাই মাসে উপকারভোগীকে অবশ্যই গর্ভবতী থাকতে হবে;
 
বর্ণিত শর্তসমূহের মধ্যে কেউ ক, খ ও ছ সহ কমপক্ষে ৫ (পাঁচ)টি শর্ত পূরণ করলে তার নাম প্রাথমিক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে।
-অধিকতর দরিদ্র অগ্রাধিকার পাবেন।
-প্রথম ও দ্বিতীয় গর্ভের সন্তান গর্ভাবস্থায় বা জন্মের ২ (দুই) বছরের মধ্যে মারা গেলে তৃতীয় গর্ভধারণকালে ভাতা প্রাপ্য হবেন।
-একজন ভাতাভোগী জীবনে একবার ২ (দুই) বছর সময়কালের জন্য মাতৃত্বকাল ভাতা পাবেন।
-কোনো কারণে সন্তানের মৃত্যু হলে অথবা গর্ভপাতের কারণে নির্দিষ্ট চক্র অসম্পূর্ণ থাকলে তিনি পুনরায় গর্ভবতী হলে পরবর্তীতে ২ (দুই) বছরের মাতৃত্ব ভাতা প্রাপ্য হবেন, যদি অন্যান্য শর্ত পূরণ হয়ে থাকে।
প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা/উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কর্তৃক গর্ভকালীন সনদ নাগরিক সনদ, ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা কর্তৃক প্রদত্ত সনদ, জন্ম নিবন্ধন সনদ
প্রয়োজনীয় খরচ
বিনামূল্যে
সেবা প্রাপ্তির সময়
৯৮ দিন (বিতরণ-০৭ দিন)
কাজ শুরু হবে
ইউনিয়ন পরিষদ/ব্যাংক উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা(UWAO) অফিস
আবেদনের সময়
সারা বছর
দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা:
জেলা ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা
সেবা না পেলে কার কাছে যাবেন
উপজেলা নির্বাহী অফিসার/জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা

 

দরিদ্র মা'র জন্য মাতৃত্বকাল ভাতার অনলাইনে আবেদনপত্র 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter